এক নজরে ডিজিটাল মহাগুরু প্রোগ্রাম

ডিজিটাল মহাগুরু প্রোগ্রাম সম্পর্কে আরো জানতে ফ্রি পিডিএফ ডাউনলোড করুন

প্রোগ্রামটি কাদের জন্য

বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী বা সদ্য পাশ করেছেন

যারা অনলাইন ফ্রিল্যান্সিং করতে আগ্রহী

যারা ই-কমার্স বিজনেস সেট আপ করতে চান

যারা দক্ষতার সাথে ই-কমার্স মার্কেটিং শিখতে চান

যারা বিভিন্ন মার্কেটিং এজেন্সিতে কাজ করছেন বা করতে ইচ্ছুক

বিভিন্ন কোম্পানীর পরিচালক

বিভিন্ন কোম্পানীর মার্কেটিং ও ক্লায়েন্ট সার্ভিস ডিপার্টমেন্টে কর্মরত ব্যাক্তিবর্গ

যারা ডেটাভিত্তিক ডিজিটাল মার্কেটিং সেক্টরে কাজ করতে চান

প্রোগ্রাম এর বিষয় বস্তু

(১) ডিজিটাল মার্কেটিং এর খুঁটিনাটি সবকিছু জানতে পারবেন

(২) কোম্পানী/ব্র্যান্ডের স্ট্র্যাটেজিক ডিজিটাল মার্কেটিং প্ল্যান তৈরি করতে পারবেন

(৩) ফেসবুক এ্যাড ম্যানেজমেন্টে দক্ষতা অর্জন করতে পারবেন

(৪) SEO সম্পর্কে সম্যক ধারণা পাবেন এবং On-Page SEO তে এক্সপার্ট হতে পারবেন

(৫) গুগল এ্যাডে সফলতার সাথে ক্যাম্পেইন চালাতে পারবেন

(৬) গুগল ট্যাগ ম্যানেজার ব্যবহার করে কোম্পানীর ওয়েবসাইট এবং ই-কমার্স ওয়েবসাইটের প্রয়োজনীয় ট্যাগ ম্যানেজ করতে পারবেন

(৭) গুগল এ্যাড এবং গুগল এ্যানালিটিক্স সার্টিফায়েড হবেন

(৮) ডিজিটাল এ্যানালিটিক্স – ফেসবুক এ্যানালিটিক্স এবং গুগল এ্যানালিটিক্সে এক্সপার্ট হতে পারবেন

(৯) গুগল ডেটা স্টুডিও ব্যবহার করে ফেসবুক এবং গুগল এ্যাডের পূর্ণাঙ্গ রিপোর্ট তৈরি করতে পারবেন

(১০) আন্তর্জাতিক মার্কেটপ্লেসে (আপওয়ার্ক/ফাইভারে) দক্ষতার সাথে কাজ শুরু করতে পারবেন

(১১) দেশী/বিদেশী কর্পোরেট প্রতিষ্ঠান বা ই-কমার্স প্রতিষ্ঠানের সোশাল মিডিয়া চ্যানেল ম্যানেজ করতে পারবেন।

প্রোগ্রামের মেথড

অন জব ট্রেনিং

লাইভ মেন্টরিং

কুইজ

অ্যাসাইনমেন্ট

অন অফিস সাপোর্ট

ক্যারিয়ার গাইডলাইন

একনজরে প্রোগ্রাম ফিচার

সপ্তাহে তিন দিন অফিসে হাতে-কলমে ট্রেনিং

৩-৬ মাসের কোর্স ডিউরেশন

সর্বমোট ৩৬-৭২ টি প্র্যাক্টিকেল ক্লাস

স্কলারশিপ সুবিধা

দক্ষ মেন্টরিং সুবিধা

স্ট্র্যাটেজিক প্ল্যান তৈরি ও প্র্যাক্টিসের সুযোগ

লাইফ টাইম মেম্বারশিপ ও কনসাল্টেশন সুবিধা

নিজস্ব ল্যাপটপ থাকতে হবে

ইন্টারনেট সুবিধা দেয়া হবে

প্রোগ্রাম শেষে প্রাপ্তি

অভিজ্ঞতা সনদ পত্র

গুগল এড এবং গুগল এ্যানালিটিক্স সার্টিফিকেট

ক্যারিয়ার গাইডলাইন

কর্পোরেটে কাজ করার সক্ষমতা

ই-কমার্স প্লাটফর্ম তৈরি ও মার্কেটিং এ দক্ষতা

ক্লায়েন্ট সার্ভিসে সন্তুষ্টি অর্জন

ফ্রিল্যান্সিং এ ক্যারিয়ার গড়ার সুযোগ

সফলতার সাথে ফেসবুক ও গুগলে এড ক্যাম্পেইন চালানো

সোশাল মিডিয়া ও এড একাউন্ট ম্যানেজে দক্ষতা

মার্কেটিং এজেন্সিতে চাকরীর সুযোগ

নিজস্ব ব্যবসা প্রতিষ্ঠার সুযোগ

লাইফটাইম কনসালটেন্সি সাপোর্ট

প্রোগ্রামের বিবরণ

ট্রেনিং এর ধরণ: অন জব ট্রেনিং

কোর্স ডিউরেশন: ৩-৬ মাস

সর্বমোট ক্লাস: ৩৬-৭২ টি (সপ্তাহে ৩ দিন)

সময়: সকাল ১০:০০ টা থেকে সন্ধ্যা ৬.৩০ টা পর্যন্ত (প্রতি শনিবার থেকে শুক্রবার ৬টি ভিন্ন সময়ে)

স্কলারশীপ: সর্বনিম্ন ১০% থেকে সর্বোচ্চ ৩০% পর্যন্ত (পারফর্মেন্সের ভিত্তিতে)

সার্টিফিকেশন: ৩ -৬ মাস এর অভিজ্ঞতা সনদপত্র (হার্ড ও অনলাইন কপি)

প্রয়োজনীয়তা: নিজস্ব ল্যাপটপ (বাধ্যতামূলক)

ট্রেনিং এর স্থান: ৯৯/১, রোড ০৪, মোহাম্মদিয়া হাউজিং লিমিটেড, মোহাম্মদপুর, ঢাকা

যোগাযোগ: +৮৮০ ৯৬১২-৪৪০৭৮৭ (সকাল ১০ টা থেকে রাত ১০:০০ টা পর্যন্ত চালু থাকে)

ইমেইল: [email protected]

ট্রেনিং ফি: ৪৫০০০ টাকা মাত্র

ডিজিটাল মহাগুরু প্রোগ্রাম নিয়ে কিছু কথা

“ডিজিটাল মহাগুরু প্রোগ্রাম” আমাদের অন্যান্য ট্রেনিং কোর্সের মত নয়। এর মূল যে বৈশিষ্ট্য একে অন্য কোর্স থেকে আলাদা করে, তা হল এর “অন জব লার্নিং” সুবিধা। এখানে আপনি নানান অনলাইন বা অফলাইন কোর্সের মত শিখার সুযোগ পাবেন ঠিকই। পাশাপাশি এই প্রোগ্রাম থেকে আপনি হাতে-কলমে কর্পোরেট কালচারে কাজ শিখতে পারবেন। যা আপনার শেখাকে আরও গতিশীল ও পরিপক্ক করবে।

বাংলাদেশে অন জব ট্রেনিং এখনো সেই রকমভাবে জনপ্রিয় হয়ে ওঠে নি। তবে আমাদের কর্মদক্ষতা বাড়াতে এর কোন বিকল্প নেই। এই ট্রেনিং এর মাধ্যমে আপনি সরাসরি একটি ডিজিটাল মার্কেটিং ও এডভারটাইজিং এজেন্সি কিভাবে কাজ করে তার খুটিনাটি শিখতে পারবেন। নিজেই দেখতে ও জানতে পারবেন কিভাবে ক্লায়েন্ট আনা হয় এবং ক্লায়েন্টের সন্তুষ্টি অর্জন করা হয়। শিখতে পারবেন নানান মার্কেটিং স্ট্র্যাটেজি। আরও জানতে পারবেন কিভাবে একটি ই-কমার্স বিজনেস দাড়া করাতে হয় ও তার থেকে কিভাবে লাভ বের করে আনতে হয়। আর এসব কিছু আপনি শুধু থিউরিটেকেলি শিখবেন না, আপনি নিজে অফিসে এসে আমাদের এক্সপার্টদের কাছে হাতে-কলমে শিখবেন। যারা বহু বছর ধরে এই সেক্টরে ক্লায়েন্টদের সন্তুষ্টির অর্জনের মাধ্যমে সার্ভিস দিয়ে যাচ্ছে। তাদের সাথে থেকে সার্ভিস দেয়া অবস্থায় কাজ শিখা আর বাসায় বসে শুনে শুনে স্ট্র্যাটেজি রপ্ত করা, দুটো তো অবশ্যই এক হতে পারে না। আর আপনাকে সর্বক্ষণ গাইড করার জন্য মেন্টরও থাকছে।

আর হ্যাঁ, আপনি এই অন জব ট্রেনিং করার সময় ঠিক কতটুকু শিখতে পারছেন তা নানা পরিক্ষার মাধ্যমে যাচাই করা হবে। কারণ আমরা চাই আমাদের এই প্রোগ্রাম আপনার ক্যারিয়ারে সফলতা নিয়ে আসুক। তাই আপনি সঠিক ভাবে শিখতে পারছেন কিনা তা যাচাই করা জরুরী। আর এসব পরীক্ষার ফলাফলের ওপর ভিত্তি করে আপনাকে স্কলারশিপ দেয়া হবে। যাতে আপনি আরও আগ্রহ নিয়ে কাজ করতে পারেন।

একটা সময় পরে আপনাকে ডিজিটাল মার্কেটিং এর নানা স্ট্র্যাটেজি রিয়েল লাইফে কাজে লাগানোর সুযোগ করে দেওয়া হবে। যেখানে আপনি ক্লায়েন্টদের সাথে কথা বলে তাদের ব্যবসার আইডিয়াকে বাস্তব রূপ দিবেন। এতে আপনি নিজেও উপলব্ধি করতে পারবেন যে আপনি এই ট্রেনিং এর মাধ্যমে কতটুকু এগিয়ে গিয়েছেন। পাশাপাশি আমাদের দেয়া অভিজ্ঞতা সনদ কাজে লাগিয়ে আপনি চাকরীর বাজারেও থাকবেন কয়েক ধাপ এগিয়ে।

সুতরাং নানা অনলাইন বা অফলাইন কোর্স করে নিজেকে গুরু ভেবে থাকলে, একটু সময় নিন। কারণ ক্যারিয়ারে সফলতা পেতে এতটুকু যথেষ্ট নয়। আপনার থিউরিটিকেল জ্ঞানের বাইরেও অনেক কিছু আছে যা আপনি নিজে কাজ না করা পর্যন্ত বুঝতে পারবেন না। আর ওগুলো বুঝতে ও রপ্ত করতে আপনাকে শুধু গুরু নয়, হতে হবে মহাগুরু।

ট্রেইনার পরিচিতি

মোঃ নাজমুল হোসেন

ফাউন্ডার, টি৩ কমিউনিকেশন লিমিটেড

মোঃ নাজমুল হোসেন, দীর্ঘ ১৪ বছরের ডিজিটাল মার্কেটিং ক্যারিয়ারে তিনি পেয়েছেন দেশীয় ও আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি। কাজ করার সুযোগ পেয়েছেন বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় অনলাইন মার্কেটপ্লেস আপওয়ার্ক এর ব্র্যান্ড এ্যাম্বাসেডর হিসেবে। কাজের স্বীকৃতি হিসেবে ২০১৪ সালে অর্জন করেন বেসিস আউটসোর্সিং এ্যাওয়ার্ড। আমেরিকা থেকে প্রকাশিত ইল্যান্স-ওডেস্ক (বর্তমান আপওয়ার্ক) এ্যানুয়াল ইম্প্যাক্ট রিপোর্টে উঠে এসেছে তার সফলতার গল্প। ফিচারড হয়েছেন আপওয়ার্ক এর ফেসবুক পেইজ থেকে। বাংলাদেশের প্রায় ৫০ হাজার শিক্ষার্থীকে ট্রেনিং এবং মেন্টরিং করেছেন যারা সফলভাবে কাজ করছেন দেশ ও বিদেশের মার্কেটপ্লেসে। বাংলাদেশ কারিগরি শিক্ষাবোর্ডের ন্যাশনাল কারিকুলাম বোর্ডের সদস্য হিসেবেও কাজ করেছেন। একজন লেখক, স্পিকার এবং উদ্যোক্তা হিসেবে বাংলাদেশ ও ভারতের বাংলা ভাষাভাষীদের কাছে অত্যন্ত জনপ্রিয়।

সম্মানিত উপদেষ্টা

ডঃ মোঃ নিয়ামুল নাসের

প্রফেসর ও চেয়ারম্যান, প্রাণীবিদ্যা বিভাগ, জীব বিজ্ঞান অনুষদ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়

ডঃ মোঃ নিয়ামুল নাসের, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের জীব বিজ্ঞান অনুষদের প্রাণীবিদ্যা বিভাগের সুনামধন্য প্রফেসর ও চেয়ারম্যান। তিনি শিক্ষাজীবন থেকে শুরু করে কর্মজীবন পর্যন্ত পেয়েছেন নানা দেশীয় ও আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি। একধারে নটরডেমিয়ান ও ঢাবিয়ান এই বুদ্ধিমান ব্যাক্তি কাজ করেছেন বাংলাদেশ মৎস্য গবেষণা ইনস্টিটিউটে। একসময় পিএইচডি করার জন্য পাড়ি জমান সুদূর কানাডায়। সেখানে পড়াশোনার পাশাপাশি প্রফেসরদের এসিস্ট্যান্ট হিসেবে কাজ করেন। পিএইচডি শেষ করে যখন দেশে ফিরেন, তখন শিক্ষক হিসেবে যোগ দেন প্রাচ্যের অক্সফোর্ডে। তখন থেকে এখন অব্দি পর্যন্ত তিনি দেশের প্রাণী ও মৎস্য কল্যাণে দেশের মানুষদের শিক্ষার মাধ্যমে উদ্বুদ্ধ করে আসছেন। দেশী-বিদেশী জার্নালে প্রাণী ও মৎস্য নিয়ে প্রচুর লেখা রয়েছে তাঁর, যা দেশের প্রাণী ও মৎস্য গবেষণায় অভাবনীয় ভূমিকা রেখেছে। দেশ বিদেশ ঘুরে বহু ইনস্টিটিউট ও কোম্পানির ছোঁয়ায় অর্জন করছেন ব্যাপক অভিজ্ঞতা। সেই অভিজ্ঞতা থেকে দেশের ছোট-বড় নানা প্রতিষ্ঠানকে পরামর্শ দিয়ে সহায়তা করছেন উন্নতির চরম শিখরে পৌঁছাতে।

আমাদের সম্মানিত গ্রেডুয়েটেড এলামনাই

ফিচার্ড ইন

জনপ্রিয় ব্লগ আর্টিকেল সমুহ

ফেসবুকে এভারগ্রীন ও LeakProof

খুলুর গল্প দিয়ে শুরু করা যাক আজকের আলোচনা। খুব ছোটবেলায় যখন গ্রামে যেতাম তখন দেখতাম আমাদের বাড়িতে একজন খুলু আসত।...

Read More

যোগাযোগ করতে

0
0 item
My Cart
Empty Cart