Call Now

ফেসবুকে এভারগ্রীন ও LeakProof ক্যাম্পেইন সেট করার পদ্ধতি

খুলুর গল্প দিয়ে শুরু করা যাক আজকের আলোচনা। খুব ছোটবেলায় যখন গ্রামে যেতাম তখন দেখতাম আমাদের বাড়িতে একজন খুলু আসত। গ্রাম বাংলার ভাষায় খুলু মানে হল যিনি তেল বিক্রি করেন। তিনি এসেই হাঁক ছাড়তেন, ও মুনির মা, এক গ্লাস পানি খাওয়াও ত। তারপর খুলু শুরু করে দিতেন মজার মজার সব গল্প। এই গল্পের মাঝেই তিনি তার তেল বিক্রির গল্প জুড়ে দিতেন। ইতিমধ্যে কিন্তু তার গল্প শোনার জন্য আশেপাশের বাড়ির লোকজন এসে হাজির হয়েছেন। সব শেষে সবার কাছে শিশিভর্তি তেল বিক্রি করে তিনি অন্য কোন জায়গায় গিয়ে হাজির হতেন। জেনেটিক ইঞ্জিনিয়ারিং পড়েও ইন্টারনেট মার্কেটার হবার গল্প নিয়ে আমার কোন এক সহকর্মী আমাকে বলেছিলেন যে ভাই আপনি ত এখন মুড়ি বিক্রেতা। যাইহোক, আমার কাছে মার্কেটিং এর সংজ্ঞা হলঃ বাঁদরের খেলা দেখানো, ঔষধ বিক্রি করা এবং সব শেষে পকেটমারিং করা। এবার আসা যাক মূল আলোচনায়।

আসলে উদ্যোক্তা হতে গিয়ে আমি একটি জিনিস জেনেছি আর সেটি হল বড় কোম্পানী আর ছোট কোম্পানীর মার্কেটিং পদ্ধতি ভিন্ন হতে হয়। বড় কোম্পানীর ব্র্যান্ড ভ্যালু আছে, সে পচা জিনিসও বেশি দামে বিক্রয় করতে পারে। কিন্তু ছোট ছোট কোম্পানীকে অনেক কৌশলে ঐ খুলুর মত করে তেল বিক্রির কৌশল অবলম্বন করতে হয়। বড় বড় কোম্পানী তাদের ব্র্যান্ড তৈরি করে বিভিন্ন সুন্দর সুন্দর টিভিসিতে চমৎকার ইমোশনাল কিংবা বিভিন্ন ধরণের আবেগকে ব্যবহার করে। একটি কথা আমার খুব মনে ধরেছে আর সেটি হল “We don’t Purchase Product, we purchase emotion” । আমি ধরে নিচ্ছি আপনি যখন আমার এই আর্টিকেল পড়ছেন তখন হয় আপনি একজন ডিজিটাল মার্কেটিং এর শিক্ষার্থী, কিংবা উদ্যোক্তা কিংবা মার্কেটিং ভালোবাসেন।

এভারগ্রীন মার্কেটিং ক্যাম্পেইন করার আগে একটু গল্প করে নিলাম। আপনাদের কাজে আসবে এই গল্প এবং উপড়ের গল্প কোন অপ্রাসঙ্গিক গল্প নয়। আপনারা যারা এই আর্টিকেল পড়বেন তাদের কে আমি একটি ম্যাজিক দেখাবো আগামী ১৮ দিন। গল্প শোনাবো আর মাঝে মাঝে আমার ট্রেনিং নামক সালশা বিক্রি করব। এবার আসা যাক এভারগ্রীন ক্যাম্পেইন আসলে কি, কেন দরকার এ ধরণের ক্যাম্পেইন আর কিভাবে সেট করবেন।

ফেসবুক মার্কেটিং এ এভারগ্রীন ক্যাম্পেইন

এভারগ্রীন ক্যাম্পেইন জানার আগে আমাদের কে জানতে হবে কাস্টমার টেম্পারেচার। অনেকে বলবেন শরীরের টেম্পারেচারের কথা আগে শুনেছি কিন্তু কাস্টমার টেম্পারেচার আবার কি জিনিস? কাস্টমার কে আমরা তিনভাগে ভাগ করি যেগুলো নিম্নরূপঃ

১. কোল্ড কাস্টমারঃ এরা হল আপনার সেই প্রস্পেক্টিভ কাস্টমার যারা কিনা আপনার ব্যবসা বা ব্র্যান্ড সম্পর্কে জানেই না। এখন আপনি ছোট ব্র্যান্ড হিসেবে তার কাছে সরাসরি পণ্যের অফার নিয়ে গেলে আপনি হয়ত তার কাছে যথাযথ সাড়া নাও পেতে পারেন। এবং এই ঘটনাটি ঘটার সম্ভাবনা অনেক বেশি। আর তাই কোল্ড কাস্টমারের কাছে আপনি চাইলে নিচে দেয়া বিভিন্ন কন্টেন্ট নিয়ে হাজির হতে পারেন।

  • চিটশীট
  • গাইড
  • কেইস স্ট্যাডি
  • ব্লগ
  • ফ্রি টিউটোরিয়াল

কেইসঃ ধরুণ আপনি গাড়ির একটি ট্র্যাকার বিক্রি করেন এখন আপনি যদি গাড়ির সমস্যা নিয়ে একটি ভিডিও তৈরি করেন কিংবা একটি চিটশীট তৈরি করেন এবং ফেসবুকে পোস্ট করেন এবং সেটিকে নিয়ে একটি ক্যাম্পেইন তৈরি করেন তাহলে সেই ভিডিও তে যারা এনগেজ হল কিংবা সেই চিটশীটি টি যারা ডাউনলোড করল তাদের ডেটা ট্র্যাক করে আপনি তাদের কে আপনার গাড়ির ট্র্যাকার এর বিজ্ঞাপন দিতে পারেন। এতে যেটি হল সেটি হল যে আপনার কোল্ড কাস্টমার কে আপনি কিছু তথ্য দিচ্ছেন আর তার সাথে সম্পর্ক তৈরি করে তার কাছে পণ্য বিক্রয় করছেন ঠিক ঐ খুলুর মত।

বিশেষ দ্রষ্টব্যঃ কোল্ড কাস্টমার এর কাছে সবসময় গল্প বললেই যে আপনি অনেক বেশি সেল পাবেন এটার গ্যারান্টি পৃথিবীর কেউই দিতে পারবে না। সেলস করার জন্য অনেক ধরণের নিয়ামক আছে যেগুলো খুবই গুরুত্বপূর্ণ। সুতরাং ভালোভাবে পড়াশোনা করে তারপর ঠান্ডা মাথায় দরকার পড়লে তিলের তেল (সাথে মেথি) মাথায় দিয়ে এই ধরণের স্ট্র্যাটেজি সেট করতে হবে।

Free Training

on Strategic & Data Driven Facebook Marketing

Enroll Now for FREE
Article Continues

২. ওয়ার্ম কাস্টমারঃ এই কাস্টমার হল সেই কাস্টমার যারা কিনা আপনার ব্র্যান্ড সম্পর্কে ইতিমধ্যে অবগত আছেন কিন্তু আপনার কাছ থেকে পণ্য বা সেবা ক্রয় করেননি। এই ধরণের কাস্টমার কে আপনি আপনার পণ্য বা সেবার বিজ্ঞাপন সরাসরি পৌছাতে পারেন। আপনার যদি ওয়েবসাইট থাকে তাহলে আপনি এই কাজটি খুব চমৎকারভাবে করতে পারবেন আর আপনি যদি শুধু ফেসবুক ব্যবহার করেন তাহলেও আপনি যারা আপনার পেইজে বা ভিডিওতে এনগেজ হয়েছে তাদের কে নিয়েও ওয়ার্ম অডিয়েন্সের সেট বানাতে পারেন।

বিশেষ দ্রষ্টব্যঃ ফেসবুক মার্কেটিং এ অডিয়েন্স কিভাবে তৈরি করতে হয় সেটি নিয়ে আমাদের একটি আর্টিকেল রয়েছে যেটি পাওয়া যাবে এই লিঙ্ক থেকেঃ ফেসবুক মার্কেটিং এ সঠিকভাবে অডিয়েন্স নির্বাচনের পদ্ধতি

৩. হট কাস্টমারঃ

যারা ইতিমধ্যে আপনার কোম্পানীর কাছ থেকে কোন পণ্য বা সেবা ক্রয় করেছেন তাদের কে আপনি হট কাস্টমারের তালিকায় রাখতে পারেন এবং তাদের কাছে আপনি আপনার ব্র্যান্ডের অন্যান্য পণ্য বা সেবা বিক্রয় করতে পারেন।

নিচের ভিডিওতে আমি আপনাদের কে এ বিষয়টি নিয়ে কিছুটা ধারণা দেবার চেষ্টা করেছি এবং আশা করছি আপনি এখান থেকে কাস্টমার জার্নি এবং কন্টেন্ট স্ট্র্যাটেজি নিয়ে কিছু একটা জানতে পারবেন।

এবার আসা যাক মূল আলোচনায় – ফেসবুক মার্কেটিং এর এভারগ্রীন ও Leakproof ক্যাম্পেইন বলতে আমরা কি বুঝি এবং কিভাবে সেটি আমরা বাস্তবায়ন করব। এটি যেহেতু আমাদের নিজের ওয়েবসাইটের জন্য বাস্তবায়ন করব সেহেতু আমাদের কেইসটি আমরা তুলে ধরছিঃ

আমাদের ট্রেনিং সেলস এর কেইস স্ট্যাডিঃ

টি৩ কমিউনিকেশন্স লিমিটেড একটি KPO ভিত্তিক কন্সালটিং অর্গানাইজেশন যারা কিনা দেশ ও দেশের বাইরে ডেটা, কন্টেন্ট এবং টেকনোলজি নিয়ে বিভিন্ন সার্ভিস প্রদান করে থাকে। গত ৬ মাস ধরে টি৩ কমিউনিকেশন্স এ ট্রেনিং ডিপার্টমেন্ট যুক্ত হয়েছে এবং ইতিমধ্যে দেশ ও বিদেশের প্রায় ১৫০০০ শিক্ষার্থী বিভিন্ন কোর্সে ভর্তি হয়েছেন। কিছু কিছু শিক্ষার্থী আমাদের প্রতি অসন্তুষ্ঠ হয়েছেন কারণ আমরা হঠাৎ করে লাইভ ট্রেনিং থেকে আমাদের লার্নিং ম্যানেজমেন্ট সিস্টেমে এসেছি। যদিও এটি একটি আধুনিক সিস্টেম এবং সময়োপযোগী একটি উদ্যোগ তথাপি এখানে নিচের বিষয়গুলো অন্তর্ভুক্ত রয়েছেঃ

  • রেকর্ডেড ভিডিও
  • প্রতিটি ভিডিও শেষে কুইজ
  • কোর্সভেদে সাপ্তাহিক আলোচনার ব্যবস্থা
  • এছাড়াও বদলে ফেলো প্রোগ্রামে এ্যাসাইনমেন্ট এর ব্যবস্থা। (মূলত আমরা চাচ্ছি এটি একটি মাস্টার্স ডিগ্রীর সমমানের একটি প্রোগ্রামের মত করে একটি ফাংশনাল এবং সময়োপযোগী কোর্স ডিজাইন করার যাতে করে আমাদের গ্রাজুয়েটরা দেশ ও দেশের বাইরে সফলতার সাথে কাজ করতে পারেন)

এ ধরণের লার্নিং ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম বিশ্বের নামীদামী বিশ্ববিদ্যালয়ও ( যেমন অক্সফোর্ড, হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয় ) ব্যবহার করে থাকেন। এছাড়া আমাদের ট্রেনিং এর ফি কম হওয়াতে অনেকে আমাদের কে বাটপার বলতেও দ্বিধা করেননি। টি৩ কমিউনিকেশন্স চাচ্ছেন আগামী ১ মাসের ভেতর সর্বমোট ৫০০০ শিক্ষার্থী ভর্তি করবেন নিচের ট্রেনিং এঃ

এছাড়াও শিক্ষার্থীদের কে যথাযথ সহযোগীতার জন্য টি৩ ইতিমধ্যে কল সেন্টার স্থাপন করেছে। সবথেকে বড় বিষয় হল আপনি যখন এই আর্টিকেল পড়ছেন তখন আমাদের স্ট্র্যাটেজিক ও ডেটাভিত্তিক ডিজিটাল মার্কেটিং ট্রেনিং এর প্রাইস ৯৯৯ টাকা থেকে বেড়ে ২৯৯৯ টাকা হয়েছে (সামনে এটি আরো বাড়ানো হবে)। আগেই বলা হয়েছে – We Don’t Purchase Product, We purchase Emotion

Strategic & Data Driven

Digital Marketing Training @2999 BDT

Save 70% Today!
Article Continues

উপড়ের উদ্দেশ্য কে সঠিকভাবে বাস্তবায়নের জন্য এবার আমরা করতে যাচ্ছি এভারগ্রীন ও LeakProof ফেসবুক ক্যাম্পেইন।

এভারগ্রীন ফেসবুক ক্যাম্পেইন কি?

এভারগ্রীন ফেসবুক ক্যাম্পেইন স্ট্র্যাটেজি হল এমন এক ধরণের ক্যাম্পেইন যেখানে ফেসবুকের বিভিন্ন ক্যাম্পেইন অবজেকটিভ কে ব্যবহার করে এমন একটি সিস্টেম রান করা হয়ে থাকে যেটি দীর্ঘদিন চলতে থাকে এবং এখানে ক্যাম্পেইনের পারফর্মেন্স দিন দিন বাড়তে থাকে। আমরা জানি যে সময়ের সাথে সাথে বিভিন্ন ক্যাম্পেইনের পারফর্মেন্স কমতে থাকে যেখানে এভারগ্রীন ক্যাম্পেইন টিকে থাকে দীর্ঘদিন এবং এখান থেকে ভালো পারফর্মেন্সও পাওয়া যায়।

বিশেষ দ্রষ্টব্যঃ ফেসবুক মার্কেটিং এর ক্ষেত্রে কখন কোন ধরণের অবজেকটিভ সেট করা উচিত সেটি নিয়ে আমাদের আরো একটি আর্টিকেল রয়েছে যেটি পাওয়া যাবে এই লিঙ্ক থেকেঃ ফেসবুক মার্কেটিং এ ক্যাম্পেইন অবজেকটিভ

এভারগ্রীন ক্যাম্পেইন কিভাবে কাজ করে এবং আমরা যেভাবে ক্যাম্পেইনটি সম্পন্ন করব

আমাদের উদ্দেশ্য হল আমরা নিচের ম্যাজিক টি করব সেই খুলুর গল্পের মত করে। আর ম্যাজিক টি হলঃ

আমরা যখন এই আর্টিকেল প্রকাশ করছি সেই তারিখটি হল ১৬ অক্টোবর, ২০২০। এই দিন আমরা আমাদের ফেসবুকে এই আর্টিকেল প্রকাশ করছি এবং একটি কনভার্সন ক্যাম্পেইন করব। যারা এই আর্টিকেলটি পড়ার জন্য ৫ মিনিট সময় ব্যায় করবে তাদের নিয়ে আমি নিচের এভারগ্রীন ক্যাম্পেইন টি সাজাব। আপনি যদি ভুলে এই আর্টিকেল পেইজে ৫ মিনিট সময় ব্যায় করেন তাহলে কিন্তু আপনি ফেঁসে গেলেন।

তাহলে আমাদের প্রথম কাজ হল যারা আমার এই আর্টিকেল ৫ মিনিট পড়বে এই ধরণের একটি ইভেন্ট তৈরি করা এবং সেটি ফেসবুক পিক্সেলে পাঠানো। এবার এই ইভেন্ট কে ব্যবহার করে একটি কাস্টম কনভার্সন তৈরি করা। এরপর আমি এই আর্টিকেল টি দিয়ে একটি কনভার্সন ক্যাম্পেইন করব কারণ এই কনভার্সন ক্যাম্পেইনের মাধ্যমেই আমি আমার সঠিক অডিয়েন্স কে খুঁজে বের করতে পারব যারা কিনা সত্যিকারের ডিজিটাল মার্কেটিং শিখতে চায় (কারণ তারা ৫ মিনিট সময় নিয়ে আমাদের এই আর্টিকেলটি পড়েছে)।

উপড়ের কাস্টম ইভেন্ট টি আমরা গুগুল ট্যাগ ম্যানেজার এর মাধ্যমে করেছি এবং এটির নাম দিয়েছি “Evergreen Timer” একই সাথে আমরা এই কাস্টম ইভেন্ট কে ব্যবহার করে আমরা একটি কাস্টম কনভার্সন তৈরি করেছি যেটির নাম দিয়েছি Evergreen_Timer (আপনি চাইলে আপনার মত করে নাম দিতে পারেন) ।

ঠিক এরকম না তবে কাছাকাছি একটি ইভেন্ট ট্র্যাকিং নিয়ে আমাদের আরো একটি আর্টিকেল রয়েছে যেটি পাওয়া যাবে এই লিঙ্ক থেকেঃ Google Tag Manager ব্যবহার করে Facebook Pixel এ Scroll Event ট্র্যাকিং করা

আর ফেসবুকে কিভাবে কনভার্সন ক্যাম্পেইন সেট করা যায় সে বিষয়ে আমাদের একটি আর্টিকেল রয়েছে এই লিঙ্কেঃ ফেসবুকে Conversion ক্যাম্পেইন সেট করার পদ্ধতি

আর্টিকেলে ৫ মিনিট সময় ব্যায় করার পর ১ম-৩য় দিনঃ আপনাদের কে আমরা আমাদের ফ্রি ট্রেনিং এ রেজিস্ট্রেশন করানোর জন্য একটি ক্যাম্পেইন করব যেখানে আমরা রিচ অবজেকটিভ ব্যবহার করব। এই ঘটনাটি কিন্তু চলতেই থাকবে তার মানে হল এটি একটি ডায়নামিক পদ্ধতি। যেসব অডিয়েন্স যখনই এই আর্টিকেল পড়ে ৫ মিনিট সময় ব্যায় করবে ঠিক তখন থেকেই ডায়নামিক্যালি এই ফানেলটি চলতে থাকবে। তবে এই কনভার্সন ক্যাম্পেইনে আমরা অডিয়েন্স থেকে তাদের কে বাদ দিব যারা কিনা ইতিমধ্যে আমাদের ফ্রি ট্রেনিং এ রেজিস্ট্রেশন করে ফেলেছেন। আপনারা জানেন যে আমরা আমাদের কাস্টমার বিহেভিওর কে এ্যানালাইসিস করার জন্য ফেসবুক পিক্সেলে অনেক ধরণের তথ্য যেমনঃ আপনি আমাদের কোন পেইজে কতক্ষণ সময় ব্যায় করলেন, কতটুকু স্ক্রল করলেন, কোন বাটন ক্লিক করলেন ইত্যাদি ইত্যাদি প্রদান করে থাকি আমাদের ওয়েবসাইট থেকে।

বিশেষ দ্রষ্টব্যঃ ফেসবুক মার্কেটিং এ কিভাবে পিক্সেল সেট করতে হয় সে বিষয়ে আমাদের একটি আর্টিকেল রয়েছে যেটি পাওয়া যাবে এই লিঙ্ক থেকেঃ ফেসবুক পিক্সেল সেট করা (যদিও এ ধরণের এ্যাডভান্সড ট্র্যাকিং এর কালো জাদু শিখতে গেলে অবশ্যই আপনাকে আমাদের বদলে ফেলো নিজেকে প্রোগ্রামে জয়েন করতে হবে)। খুলুর গল্পের মতই কিন্তু মার্কেটিং ও চালিয়ে যাচ্ছি।

এভারগ্রীন ক্যাম্পেইনে ট্রিগার সেট করা এবং গোপন কৌশল! (কাউকে বলবেনা না!)

এবার যারা ফেসবুক মার্কেটিং ট্রেনিং এ রেজিস্ট্রেশন করল তাদের তথ্য কিন্তু আমি পিক্সেলের সাহায্যে ফেসবুকে পাঠিয়ে দিচ্ছি। যারা এই ফেসবুক মার্কেটিং ট্রেনিং এ রেজিস্ট্রেশন করল তারাই এবার আমাদের ফানেলে পড়ে গেল। গল্পের শুরুটা এখান থেকে। তার মানে হল, যারা ফ্রি ফেসবুক মার্কেটিং ট্রেনিং এ রেজিস্ট্রেশন করল তাদের কেই আমি আগামী ১৮ দিন এই এভারগ্রীন ক্যাম্পেইনের আওতায় নিয়ে আসব।

এবার আমরা নিচের স্ট্র্যাটেজি ব্যবহার করে আমাদের ডিজিটাল গুরু প্রোগ্রাম এবং বদলে ফেলো নিজেকে ট্রেনিং নামক সালসা বিক্রির চেষ্টা করবঃ

ফ্রি ট্রেনিং এ রেজিস্ট্রেশন এর ১ম-৩য় দিনঃ আমরা একটি আর্টিকেল (আগে থেকেই বলে দেই – ফেসবুক মার্কেটিং এ সঠিকভাবে অডিয়েন্স নির্বাচনের পদ্ধতি ) আপনাদের ফেসবুক নিউজ ফিডে পুশ করব ফেসবুক ক্যাম্পেইনের রিচ অবজেকটিভ ব্যবহার করে। রিচ অবজেকটিভ ব্যবহার করার কারণ হল আমি এই অবজেকটিভ ব্যবহার করে ফ্রিকোয়েন্সি ক্যাপিং করতে পারব। আমি এই ৩ দিনে যাতে অন্তত ৩ বার আপনার নিউজফিডে এই আর্টিকেল টি আসে সেটি দেখানোর চেষ্টা করব। সবই কালো জাদুর খেলা, সেই কামরূপ কামাক্ষার মত।

ফেসবুক এড নিয়ে আর চিন্তা নয়! টি৩ তে সব হয়।

এড একাউন্ট নেওয়ার নিয়ম সম্পর্কে জানতে নিচের বাটনে ক্লিক করুন।

Click Here
Article Continues

ফ্রি ট্রেনিং এ রেজিস্ট্রেশন এর ৪র্থ- ৬ষ্ঠ দিনঃ এই সময়টাতে আমি আমাদের ২৯৯৯ টাকা মূল্যের যে ডিজিটাল গুরু প্রোগ্রাম আছে সেই প্রোগ্রামের বিজ্ঞাপন আপনার নিউজফিডে দেখাবো। আর এবার আমি ৩ দিনে ৯ বার দেখানোর চেষ্টা করব। এখেত্রেও আমি রিচ অবজেকটিভ ব্যবহার করব কারণ আমি এই অবজেকটিভ এর ক্ষেত্রে ফ্রিকোয়েন্সি টাকে কন্ট্রোল করতে পারছি। ফ্রিকোয়েন্সি কি জিনিস সেটি জানতে হলে আপনাকে এই লিঙ্কে গিয়ে আর্টিকেলটি পড়তে হবেঃ ফেসবুক মার্কেটিং এর বিভিন্ন মেজারমেন্ট মেট্রিক

ফ্রি ট্রেনিং এ রেজিস্ট্রেশন এর ৭ম-৯ম দিনঃ এই পর্যায়ে আমি আবার গল্পে ফিরে আসব এবং আমাদের নির্দিষ্ট অডিয়েন্স কে বোঝাব যে আমরা কিছুটা ডিজিটাল মার্কেটিং পারি আর এ জন্য তাদের কে একটি আর্টিকেল পড়াব। সেটি হলঃ ফেসবুক মার্কেটিং এ ক্যাম্পেইন অবজেকটিভ। এ পর্যায়েও আমি কিন্তু রিচ অবজেকটিভ ব্যবহার করব কারণ সেই একটাই যে ফ্রিকোয়েন্সি ক্যাপিং করা যাচ্ছে। আর আপনি বলতে পারেন যে আমরা কেন এই আর্টিকেল নির্দিষ্ট আর্টিকেল কে এখানে পুশ করছি, কারণ হল আমাদের এ্যানালিটিক্স থেকে আমরা দেখেছি যে আমরা নির্দিষ্ট কিছু সংখ্যক আর্টিকেলে ট্রাফিক দের কাছ থেকে ভালো রেসপন্স পাচ্ছি।

ফ্রি ট্রেনিং এ রেজিস্ট্রেশন এর পর ১০ম-১২তম দিনঃ এই দিনগুলোতে আবার সেই সালসা ২৯৯৯ টাকায় ডিজিটাল গুরু প্রোগ্রাম আর সেই আগের গল্পই রিচ অবজেকটিভ। এবার আমি ৩ দিনে ৯ বার দেখানোর জন্য চেষ্টা করব এবং অবশ্যই ম্যানুয়াল প্লেসমেন্টের সাহায্যে এটি করব যাতে করে আমার এ্যাড টি নিউজ ফিডে থাকে কারণ এটি যদি ডানপাশে (মানে রাইট কলামে) থাকে তাহলে কিন্তু অনেকের চোখে নাও পড়তে পারে। আগের মতই যারা ইতিমধ্যে ডিজিটাল গুরু নামক প্রোগ্রামের সালসা খেয়ে ফেলেছেন তাদের কে এই এ্যাড সেট থেকে বাদ দেয়া হবে ।

বিশেষ দ্রষ্টব্যঃ একটি কথা না বললেই নয় আর সেটি হলে বদলে ফেলো প্রোগ্রামে রেজিস্ট্রেশন করলে কিন্তু ডিজিটাল গুরু প্রোগ্রাম পাচ্ছেন একদম ফ্রি।

ফ্রি ট্রেনিং এ রেজিস্ট্রেশন এর ১৩তম-১৫তম দিনঃ এই দিনগুলোতে আমরা আরো একটি আর্টিকেল আমাদের টার্গেট অডিয়েন্স কে পড়াব আর সেটি হলঃ ফেসবুক পিক্সেল সেট করা। আগের মতই রিচ অবজেকটিভ ব্যবহার করে, ফ্রিকোয়েন্সি ক্যাপিং ৩ এবং ম্যানুয়াল প্লেসমেন্ট হিসেবে নিউজফিড ব্যবহার করে। সেই সাথে বদলে ফেলো প্রগ্রামের বিজ্ঞাপন ত চলতেই থাকবে।

ফ্রি ট্রেনিং এ রেজিস্ট্রেশন এর পর ১৬তম-১৮তম দিনঃই দিনগুলোতে আবার সেই সালসা ২৯৯৯ টাকায় ডিজিটাল গুরু প্রোগ্রাম আর সেই আগের গল্পই রিচ অবজেকটিভ। এবার আমি ৩ দিনে ৯ বার দেখানোর জন্য চেষ্টা করব এবং অবশ্যই ম্যানুয়াল প্লেসমেন্টের সাহায্যে যাতে করে আমার এ্যাড টি নিউজ ফিডে থাকে কারণ যদি এটি ডানপাশে থাকে তাহলে কিন্তু অনেকের চোখে নাও পড়তে পারে। আগের মতই এই সেটে যারা ইতিমধ্যে ডিজিটাল গুরু নামক প্রোগ্রামের সালসা খেয়ে ফেলেছেন তাদের কে বাদ দেয়া হবে এই সেট থেকে।

এই হল আমাদের কালো জাদুর স্ট্র্যাটেজি। এবার তাহলে কি করতে হবে আমাদের কে? একটু ভাবুন।

বিনামূল্যে জয়েন করুন

বাংলা ভাষার সবথেকে বড় ডেটাভিত্তিক ডিজিটাল মার্কেটিং কমিউনিটিতে

জয়েন করতে চাই
Article Continues

এভারগ্রীন ক্যাম্পেইন সেট করার পদ্ধতি

ক্যাম্পেইন ১ঃ এই আর্টিকেল টি পড়ানোর জন্য একটি কনভার্সন ক্যাম্পেইন সেট করা

  • ক্যাম্পেইন অবজেকটিভঃ Conversion
  • কনভার্সন ইভেন্টঃ Evergreen_Timer
  • এ্যাডসেটঃ আমাদের ওয়েবসাইটের পুরনো ভিজিটর, কিছু নতুন অডিয়েন্স নিয়ে আমরা একটি এ্যাডসেট তৈরি করেছি। কনভার্সন ইভেন্ট হিসেবে আমরা আমাদের তৈরি করা কাস্টম কনভার্সন টি ব্যবহার করেছি। নিচে স্ক্রিনশট টি দিয়েছি।
  • এ্যাডঃ এ্যাড হিসেবে আপনি যে আর্টিকেল টি পড়ছেন সেটি দেখা যাবে যেটি দেখতে নিচের মত হবে।

ক্যাম্পেইন ২ঃ এবার আমরা আমাদের ফ্রি ট্রেনিং প্রোগ্রামের জন্য একটি ক্যাম্পেইন করব

  • ক্যাম্পেইন অবজেকটিভঃ Reach
  • ফ্রিকোয়েন্সিঃ 6 Impressions in 3 Days
  • এ্যাডসেটঃ
    • আমরা একটি অডিয়েন্স তৈরি করব যারা গত ৩ দিনে “Evergreen_Timer” ইভেন্ট টির আওতায় এসেছেন তার মানে হল তারা আমাদের এই আর্টিকেল এ ৫ মিনিট সময় ব্যায় করেছেন।
    • যারা ইতিমধ্যে আমাদের ফ্রি ট্রেনিং এ রেজিস্ট্রেশন করেছেন তাদের কে এই এ্যাডসেট থেকে বাদ দিয়ে দিব
  • এ্যাডঃ এ্যাড টি দেখতে নিচের মত হবে।
  • প্লেসমেন্টঃ ম্যানুয়াল – Facebook News Feed, Instagram News Feed

নোটঃ এই ক্যাম্পেইনে যারা রেজিস্ট্রেশন করবে তাদেরকেই আমরা ট্রিগার হিসেবে এভারগ্রীন ফানেলে নিয়ে যাবো। অডিয়েন্স তৈরি করতে নিচের স্ক্রিনশট টি দেখুনঃ

Strategic & Data Driven

Digital Marketing Training @2999 BDT

Save 70% Today!
Article Continues

ক্যাম্পেইন ৩ঃ একটি সিকুয়েন্সিয়াল ফানেল হবে যেখানে অনেকগুলো এ্যাডসেট থাকবে

  • ক্যাম্পেইন অবজেকটিভঃ Reach
    • এ্যাডসেট ১ঃ ১-৩ দিন (অটোমেটিক্যালি এবং ডায়নামিক ফানেল হবে)
    • এ্যাডসেট ২ঃ ৪-৬ দিন (অটোমেটিক্যালি এবং ডায়নামিক ফানেল হবে)
      • অডিয়েন্সঃ
        • Include: যারা গত ৬ দিনে ফ্রি ট্রেনিং এ রেজিস্ট্রেশন করেছেন
        • Exclude: যারা গত ৩ দিনে ফ্রি ট্রেনিং এ রেজিস্ট্রেশন করেছেন
      • এ্যাড কন্টেন্টঃ ডিজিটাল গুরু প্রোগ্রাম
      • ফ্রিকোয়েন্সিঃ 9 Impressions in 3 Days
      • Placement: manual – Facebook Feed & Instagram Feed
    • এ্যাডসেট ৩ঃ ৭-৯ দিন (অটোমেটিক্যালি এবং ডায়নামিক ফানেল হবে)
      • অডিয়েন্স
        • Include: যারা গত ৯ দিনে ফ্রি ট্রেনিং এ রেজিস্ট্রেশন করেছেন
        • Exclude: যারা গত ৬ দিনে ফ্রি ট্রেনিং এ রেজিস্ট্রেশন করেছেন
      • এ্যাড কন্টেন্ট : ফেসবুক মার্কেটিং এ ক্যাম্পেইন অবজেকটিভ
      • ফ্রিকোয়েন্সিঃ 6 Impressions in 3 Days
      • Placement: manual – Facebook Feed & Instagram Feed
    • এ্যাডসেট ৪ঃ ১০-১২ দিন (অটোমেটিক্যালি এবং ডায়নামিক ফানেল হবে)
      • অডিয়েন্সঃ
        • Include: যারা গত ১২ দিনে ফ্রি ট্রেনিং এ রেজিস্ট্রেশন করেছেন
        • Exclude: যারা গত ৯ দিনে ফ্রি ট্রেনিং এ রেজিস্ট্রেশন করেছেন
      • এ্যাড কন্টেন্টঃ ডিজিটাল গুরু প্রোগ্রাম
      • ফ্রিকোয়েন্সিঃ 9 Impressions in 3 Days
      • Placement: manual – Facebook Feed & Instagram Feed
    • এ্যাডসেট ৫ঃ ১৩-১৫ দিন (অটোমেটিক্যালি এবং ডায়নামিক ফানেল হবে)
      • অডিয়েন্সঃ
        • Include: যারা গত ১৫ দিনে ফ্রি ট্রেনিং এ রেজিস্ট্রেশন করেছেন
        • Exclude: যারা গত ১২ দিনে ফ্রি ট্রেনিং এ রেজিস্ট্রেশন করেছেন
      • এ্যাড কন্টেন্টঃ ফেসবুক পিক্সেল সেট করা
      • ফ্রিকোয়েন্সিঃ 6 Impressions in 3 Days
      • Placement: manual – Facebook Feed & Instagram Feed
    • এ্যাডসেট ৬ঃ ১৬-১৮ দিন (অটোমেটিক্যালি এবং ডায়নামিক ফানেল হবে)
      • অডিয়েন্সঃ
        • Include: যারা গত ১৮ দিনে ফ্রি ট্রেনিং এ রেজিস্ট্রেশন করেছেন
        • Exclude: যারা গত ১৫ দিনে ফ্রি ট্রেনিং এ রেজিস্ট্রেশন করেছেন
      • এ্যাড কন্টেন্টঃ ডিজিটাল গুরু প্রোগ্রাম
      • ফ্রিকোয়েন্সিঃ 9 Impressions in 3 Days
      • Placement: manual – Facebook Feed & Instagram Feed

ব্যাস! হয়ে গেল এভারগ্রীন ক্যাম্পেইন তৈরি। এবার যারা এই আর্টিকেল পড়তে গিয়ে ৫ মিনিট সময় তাদের জীবন থেকে হারিয়ে ফেললেন তারা যুক্ত হয়ে গেলেন আমাদের এই কালো জাদুর চক্করে। সাবধান!

ক্যাম্পেইন ২ এর এ্যাডসেট এর অডিয়েন্স তৈরির পদ্ধতি

ক্যাম্পেইন ৩> এ্যাডসেট ২ এর অডিয়েন্স তৈরির পদ্ধতি

উপড়ের নিয়মে সবগুলো এ্যাডসেটে অডিয়েন্স সেট করতে হবে।

ভালোভাবে দেখলে দেখা যাবে যে পুরো প্রক্রিয়ায় সব ধরণের লিকেজ বন্ধ করা হয়েছে। আর এজন্যই এটিকে Leakproof ক্যাম্পেইন হিসেবে আখ্যায়িত করা হয়েছে। আশা করছি আগামী ৩০ দিন এই ক্যাম্পেইন চালিয়ে আপনাদের কাছে এই ক্যাম্পেইনের কেইস নিয়ে হাজির হব। সে পর্যন্ত সবাই ভালো থাকুন।

লেখক পরিচিতিঃ

এই ব্লগ পোস্টটি লিখেছেন টি৩ কমিউনিকেশন্স লিমিটেড এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোঃ নাজমুল হোসেন। দীর্ঘ ১৩ বছরের ডিজিটাল মার্কেটিং ক্যারিয়ারে তিনি পেয়েছেন দেশীয় ও আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি । কাজ করার সুযোগ পেয়েছেন বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় অনলাইন মার্কেটপ্লেস আপওয়ার্ক এর ব্র্যান্ড এ্যাম্বাসেডর হিসেবে। কাজের স্বীকৃতি হিসেবে ২০১৪ সালে অর্জন করেন বেসিস আউটসোর্সিং এ্যাওয়ার্ড। ইল্যান্স-ওডেস্ক (বর্তমান আপওয়ার্ক) এ্যানুয়াল ইম্প্যাক্ট রিপোর্টে উঠে এসেছে তার সফলতার গল্প। তার সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন

মোঃ নাজমুল হোসেন

Popular Blog

Leave a Comments

0
0 item
My Cart
Empty Cart