Call Now

ফেসবুক মার্কেটিং এর বিভিন্ন মেজারমেন্ট মেট্রিক

যা যা শেখা যাবে এই ব্লগ থেকে

  • ফেসবুক মার্কেটিং এর বিভিন্ন মেট্রিক
  • কখন কোন মেট্রিক আপনাকে বিবেচনায় আনতে হবে
  • কোন মেট্রিক থেকে আপনি মার্কেটিং এর জন্য সবথেকে ভালো সিদ্ধান্ত নিতে পারবেন?

অনেকেই আমাকে প্রশ্ন করেন আর সেটি হল আপনি ফেসবুক মার্কেটিং এর ক্ষেত্রে কি মেথড ব্যবহার করেন । আমি একটি মেথড ব্যবহার করি যেটি কিনা আমি শিখেছিলাম লীন সিক্স সিগমা ব্ল্যাক বেল্ট করতে গিয়ে আর সেটি হল নিম্নরূপঃ

Design > Measure > Analyze > Improve > Control

ফেসবুক মার্কেটিং ক্যাম্পেইন এর প্রথম ধাপ হল ডিজাইন (এই ডিজাইন মানে কিন্তু ভিজুয়াল ডিজাইন না) বরং এই ডিজানের ভেতর যা যা থাকে সেগুলো হলঃ

  • ক্যাম্পেইনের অডিয়েন্স কারা,
  • ভিজুয়াল কি হবে,
  • ক্যাপশন কি হবে,
  • প্লেসমেন্ট কি হবে ইত্যাদি

আর এ সব কিছু নির্ভর করে আপনার ফেসবুক মার্কেটিং এর স্ট্র্যাটেজিক প্ল্যানের উপড়। যাই হোক ফেসবুক ক্যাম্পেইনের ডিজাইন কিভাবে করতে হয় সে বিষয়ে না হয় অন্য একদিন আলোচনা করা যাবে। আজকে আমরা আলোচনা করব যে ফেসবুক মার্কেটিং এর বিভিন্ন মেজারমেন্ট মেট্রিক, এই মেট্রিক আসলেই আপনাকে কোন ইনসাইট দেয় কিনা ইত্যাদি।

ফেসবুক এড নিয়ে আর চিন্তা নয়! টি৩ তে সব হয়।

এড একাউন্ট নেওয়ার নিয়ম সম্পর্কে জানতে নিচের বাটনে ক্লিক করুন।

Click Here
Article Continues

Impression (ইম্প্রেশন)

এটি আসলে এক ধরণের হুদাই মেট্রিক তার মানে এটি দেখে আপনি কখনোই বলতে পারবেন না যে আপনার ক্যাম্পেইন খুব ভালো চলছে। এটা দেখে শুধু আপনি জানতে পারবেন যে আপনার এ্যাড কত বার আপনার টার্গেট অডিয়েন্স এর স্ক্রিনে ভেসে এসেছে।

কেইস ১ঃ আপনার কোন এক টার্গেট অডিয়েন্স এর স্ক্রিনে সকালে একবার এ্যাড ভেসে আসার পর তিনি স্ক্রল করে নিচে চলে গেলেন এবং আবার স্ক্রল করে উপড়ে এসে একই এ্যাড দেখলেন। তাহলে এক্ষেত্রে Impression কত হবে? একই ব্যাক্তি যদি আবার বিকেলে এ্যাড টি দেখেন তাহলে Impression কত হবে?

কেইস ২ঃ ধরুণ আপনি একটি ভিডিও এ্যাড দিয়েছেন এবং আপনার টার্গেট অডিয়েন্স কে ভিডিওটি দেখানো হয়েছে কিন্তু তিনি ভিডিওটি প্লে করেন নি এক্ষেত্রে Impression কাউন্ট হবে কিনা?

কেইসের সমাধানঃ কেইস ১ এর প্রথম ঘটনায় Impression ১ হবে এবং দ্বিতীয় ঘটনায় Impression ২ হবে কারণ আপনার টার্গেট অডিয়েন্সের স্ক্রিনে দুটি ভিন্ন সময়ে আপনার এ্যাড দেখানো হয়েছে। আর কেইস ২ এর ক্ষেত্রে ভিডিও প্লে না করলেও Impression হিসেবে কাউন্ট হবে।

Free Training

on Strategic & Data Driven Facebook Marketing

Enroll Now for FREE
Article Continues

Auto Refresh Impression (অটো রিফ্রেশ ইম্প্রেশন)

এই ঘটনাটি ঘটে যখন আপনার এ্যাড টি রাইট কলামে দেখানো হয়। আমরা জানি যে ডেস্কটপের ডান পাশে ফেসবুকে এ্যাড দেখা যায় এবং একটি নির্দিষ্ট সময় পরপর এই রাইট কলামের এ্যাড রিফ্রেশ হয়ে নতুন এ্যাড দেখায়। এই অটো রিফ্রেশের ফলে আপনার এ্যাড টি নির্দিষ্ট পরিমাণে ডেস্কটপের রাইট কলামে দেখানো হয়।

ফেসবুক মার্কেটিং এ অটো রিফ্রেশ ইম্প্রেশন

সিপিএম (CPM)

CPM = Cost Per Thousand Impression (Cost Per Mile)

১০০০ ইম্প্রেশনে কত ডলার খরচ হবে সেটি হল ইম্প্রেশন। এখন প্রশ্ন একটা থেকেই যায় আর সেটি হল যে কখন CPM বেশি হবে এবং কখন CPM কম হবে। আরো একটি প্রাসঙ্গিক প্রশ্ন থেকেই যায় আর সেটি হল CPM কম বা বেশি এটির উপড় কি আমাদের ক্যাম্পেইনের পারফর্মেন্স নির্ভর করে।

Reach (রিচ )

এটিও আরেক ধরণের হুদাই মেট্রিক তার মানে এটি দেখে আপনি কখনোই বলতে পারবেন না যে আপনার ক্যাম্পেইন খুব ভালো চলছে বরং এটি থেকে আপনি এইটুকু বুঝতে পারবেন যে আপনার বিজ্ঞাপনটি কতজন মানুষের কাছে পৌঁছেছে। দুই ধরণের রিচ হতে পারে ফেসবুকে আর সেগুলো হল অর্গানিক রিচ এবং পেইড রিচ। আপনার একটি কন্টেন্ট যখন ফেসবুকের মাধ্যমে কোন রকম প্রমোশন ছাড়াই মানুষের কাছে পৌছায় তখন তাকে অর্গানিক রিচ বলা হয়।

বিঃদ্রঃ এতক্ষণ যে মেট্রিক গুলোকে হুদাই মেট্রিক হিসেবে আখ্যায়িত করা হল সেই মেট্রিক গুলো মূলত ব্র্যান্ডে ক্যাম্পেইনের KPI (Key Performance Indicator) হিসেবে ধরা হয়।

সীমাবদ্ধতাঃ

  • রিচ বেশি হলেই যে ক্যাম্পেইন থেকে বেশি সেল পাওয়া যাবে এটা বলা দুষ্কর। সঠিক অডিয়েন্সের কাছে না পৌঁছালে আসলে লাভের থেকে ক্ষতিই বেশি কারণ বেশি অডিয়েন্সের রিচ করতে গেলে সেক্ষেত্রে আপনার খরচও কিন্তু বেশি লেগে যাবে।

ফ্রিকোয়েন্সি (Frequency)

একদম সহজ ভাষায় বলতে গেলে বলতে হবে যে একজন অডিয়েন্স কে কতবার এ্যাড টা দেখানো হল সেটাই হল ফ্রিকোয়েন্সি। ফ্রিকোয়েন্সি মেজারমেন্ট করা হয়ে এভাবেঃ

ফ্রিকোয়েন্সি = ইম্প্রেশন/রিচ

তার মানে ইম্প্রেশন কে রিচ দিয়ে ভাগ করলেই ফ্রিকোয়েন্সি পাওয়া সম্ভব।

কমন প্রশ্নঃ ভাইয়া কত ফ্রিকোয়েন্সি ভালো?

উত্তরঃ ভাইয়া প্রশ্নের সঠিক উত্তরটি আমারো জানা নেই, আমি শুধু বুঝি লাক্স সাবানের বিজ্ঞাপন যদি টিভিতে প্রতিদিন ৫-৭ বার দেখানোর পরও যেহেতু তার ব্র্যান্ডের ইম্প্রেশন কমে না সেক্ষেত্রে আমরা চাইলে বেশি ফ্রিকোয়েন্সিতেও এ্যাড রান করতে পারি। আবার অনেকে বলে থাকেন যে ভাই এক জিনিস কি বার বার দেখতে মানুষ বিরক্ত হয়? আমার ধারণা এতে আরো আস্থা বাড়ে কারণ মানুষ তাতে আপনার ব্র্যান্ড কে কিছুটা হলেও মনে রাখতে পারে। তবে বেশি ফ্রিকোয়েন্সি মানেই বেশি খরচ সেহেতু এটা খুব ভেবেচিন্তে করতে হবে।

Strategic & Data Driven

Digital Marketing Training @2999 BDT

Save 70% Today!
Article Continues

রেজাল্ট (Result)

একটি স্ক্রিনশট দেখে আসা যাকঃ

ফেসবুক মার্কেটিং এ রেজাল্ট মেট্রিক

উপড়ের স্ক্রিনশট থেকে আমরা দেখতে পাচ্ছি যে বাম পাশে তিনটি ক্যাম্পেইন দেখা যাচ্ছে। প্রথম ক্যাম্পেইনের রেজাল্ট দেখা যাচ্ছে রিচ। আমরা দেখতে পাচ্ছি যে এই ক্যাম্পেইনে ৬৩৯ টি রিচ হয়েছে। আসলে এই ক্যাম্পেইনের Objective ই ছিল রিচ এ কারণেই এই ক্যাম্পেইনের রেজাল্ট হিসেবে রিচ দেখানো হচ্ছে। আবার নিচের ক্যাম্পেইন দুটির Objective ছিল কনভার্সন এবং এক্ষেত্রে কাস্টম কনভার্সন এর যে নাম দেয়া হয়েছে সেটিই রেজাল্ট হিসেবে এখানে দেখানো হচ্ছে।

বিঃদ্রঃ ফেসবুকে কনভার্সন ক্যাম্পেইন কিভাবে সেট করতে হয় সে বিষয়ে আমাদের ওয়েবসাইটে একটি আর্টিকেল প্রকাশিত হয়েছে যেটি পাওয়া যাবে এই লিঙ্ক থেকেফেসবুক মার্কেটিং এ Conversion ক্যাম্পেইন সেট করার পদ্ধতি

সিটিআর (CTR)

এটিকে একটি গুরুত্বপূর্ণ মেট্রিক বলা যেতে পারে। এই মেট্রিক টি গণনা করা হয় শতাংশে। ১০০ টি ইম্প্রেশনে কয়টি ক্লিক হল সেটিই মূলত CTR। একটি স্ক্রিনশট দেখে আসা যাক।

ফেসবুক মার্কেটিং এ সিটিআর মেট্রিক

উপড়ের স্ক্রিনশট থেকে দেখা যাচ্ছে যে একদম ডান পাশে যে কলাম রয়েছে সেটিতে CTR মেট্রিকের ভ্যালু দেখা যাচ্ছে।

প্রথম ক্যাম্পেইনের CTR: 10.8%

দ্বিতীয় ক্যাম্পেইনের CTR: 8.34%

তৃতীয় ক্যাম্পেইনের CTR: 7.48%

সুতরাং প্রথম ক্যাম্পেইনের ক্ষেত্রে আমরা বলতে পারি যে এই ক্যাম্পেইনের এ্যাডগুলো গড়ে ১০০ টি ইম্প্রেশনের বিপরীতে ১০.৮ শতাংশ ক্লিক পেয়েছে।

সীমাবদ্ধতাঃ

  • CTR বেশি হলেই যে কনভার্সন বেশি হচ্ছে সেটি বলা যাচ্ছেনা
  • কিছু কিছু ক্ষেত্রে দেখা গিয়েছে কম CTR নিয়েও অনেক ক্যাম্পেইন বেশি কনভার্সন দিচ্ছে
বিনামূল্যে জয়েন করুন

বাংলা ভাষার সবথেকে বড় ডেটাভিত্তিক ডিজিটাল মার্কেটিং কমিউনিটিতে

জয়েন করতে চাই
Article Continues

আরওএস (ROAS)

আমার কাছে এটিকে একটি সালশা মেট্রিক হিসেবে মনে হয়। ফেসবুক ক্যাম্পেইনে এই মেট্রিক দারুণ ভূমিকা পালন করে থাকে। আসলে ১ ডলার খরচ করলে ক্যাম্পেইন থেকে কত ডলার রেভিনিউ পাচ্ছেন সেটিই আসলে এই মেট্রিক আমাদের কে বলে দেয়। নিচের স্ক্রিনশট দেখে আসা যাকঃ

ফেসবুক মার্কেটিং এ আরওএস মেট্রিক

উপড়ের স্ক্রিনশট এর ডান পাশে আমরা দেখতে পাচ্ছি ROAS মেট্রিক। ফেসবুক ক্যাম্পেইনে কিভাবে ROAS নির্ণয় করা যায় সে বিষয়ে আমার লেখা একটি আর্টিকেল পাবেন এই আর্টিকেলে – ফেসবুক মার্কেটিং এ ROAS মেজারমেন্ট মেট্রিক নির্ণয় । এবার উপড়ের স্ক্রিনশট নিয়ে একটু আলোচনা করা যাকঃ

প্রথম ক্যাম্পেইনের ROAS: .58

দ্বিতীয় ক্যাম্পেইনের ROAS: 3.32

তৃতীয় ক্যাম্পেইনের ROAS: 1.30

চতুর্থ ক্যাম্পেইনের ROAS: 1.22

সুতরাং আমরা দেখতে পাচ্ছি যে দ্বিতীয় ক্যাম্পেইনে আমরা ROAS পেয়েছি ৩.৩২ তার মানে হল এই ক্যাম্পেইনে প্রতি ১ ডলার খরচ করলে আমরা এর বিপরীতে ৩.৩২ ডলার রেভিনিউ পাচ্ছি। মনে রাখতে হবে এটা কিন্তু রেভিনিউ, প্রফিট না।

লেখক পরিচিতিঃ

এই ব্লগ পোস্টটি লিখেছেন টি৩ কমিউনিকেশন্স লিমিটেড এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোঃ নাজমুল হোসেন। দীর্ঘ ১৩ বছরের ডিজিটাল মার্কেটিং ক্যারিয়ারে তিনি পেয়েছেন দেশীয় ও আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি । কাজ করার সুযোগ পেয়েছেন বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় অনলাইন মার্কেটপ্লেস আপওয়ার্ক এর ব্র্যান্ড এ্যাম্বাসেডর হিসেবে। কাজের স্বীকৃতি হিসেবে ২০১৪ সালে অর্জন করেন বেসিস আউটসোর্সিং এ্যাওয়ার্ড। ইল্যান্স-ওডেস্ক (বর্তমান আপওয়ার্ক) এ্যানুয়াল ইম্প্যাক্ট রিপোর্টে উঠে এসেছে তার সফলতার গল্প। তার সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন

মোঃ নাজমুল হোসেন

Tags:

Popular Blog

Leave a Comments

0
0 item
My Cart
Empty Cart